বিএনপির নির্বাচনে অংশগ্রহণের সিদ্ধান্ত ২ দিনের মধ্যে

ডেইলি মিরর ২৪ ডেস্কঃ 

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ২০–দলীয় জোট যাব কি যাব না এই ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আগামী দুই দিনের মধ্যে জানানো হবে বলে জনিয়েছেন এলডিপির সভাপতি অলি আহমদ।

আজ শনিবার গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে ২০–দলীয় জোটের বৈঠক শেষে সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে অলি আহমদ এসব মন্তব্য করেন। সভায় সভাপতিত্ব করেন অলি আহমদ।

অলি আহমদ বলেন, বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে, তাহলে নির্বাচনের পরিবেশ ফিরে আসবে। এখনো পর্যন্ত সবার জন্য সমান সুযোগ সৃষ্টি হয়নি। এটা নিশ্চিত করা সরকারের দায়িত্ব।

এ সময় সাংবাদিকের এক প্রশ্নের জবাবে অলি আহমদ বলেন, অবশ্যই নিবন্ধনভুক্ত যেসব দল আছে, তারা চিঠি লিখবে। চিঠির ভাষা এ রকম হবে, ‘যদি আমরা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করি, সে ক্ষেত্রে আমাদের অনেকে দলীয় প্রতীকে নির্বাচন করবেন। আবার অনেকে জোটগতভাবে নির্বাচন করবেন।’

অপর এক প্রশ্নের জবাবে সাবেক মন্ত্রী অলি আহমদ বলেন, ‘আমরা নির্বাচনে যাওয়া না–যাওয়ার বিষয়ে আলোচনা করেছি। সরকার কথা দিয়েছিল সবার জন্য লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নিশ্চিত করবে। আমরা মনে করি না যে সবার জন্য লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নিশ্চিত হয়েছে। আমরা দেখছি প্রতিনিয়ত বিশেষ করে বিএনপির নেতা-কর্মীদের আটক করা হচ্ছে, রাস্তাঘাটে তাঁদের নির্যাতন করা হচ্ছে, এসব বন্ধ না করা পর্যন্ত সুস্পষ্টভাবে আমাদের সিদ্ধান্ত আমরা জানাব না। অনেকে আমাকে প্রশ্ন করেছে, আগামীকাল নির্বাচন কমিশনে চিঠি দেওয়ার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। সে ক্ষেত্রে আমরা বলব, যদি আমরা একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করি, সে ক্ষেত্রে অনেকে আমরা নিজস্ব দলীয় প্রতীকে অংশগ্রহণ করব, অনেকে ২০–দলীয় জোটের শীর্ষ দল বিএনপির ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে।’

অলি আহমদ আরও বলেন, অবশ্যই ২০–দলীয় জোটের সিদ্ধান্ত হয়েছে, শুধু ২০–দলীয় জোট নয়, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে কথা বলে মতামত নিয়ে নির্বাচনে যাওয়া না–যাওয়ার সিদ্ধান্ত জাতিকে জানানো হবে।

আজকের বৈঠকে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ ২০–দলীয় জোটের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

কমেন্টস

কমেন্টস