প্লে-অফের দ্বারপ্রান্তে কলকাতা

স্পোর্টস ডেস্কঃ 

আইপিএলে মাত্র এক সপ্তাহের ব্যবধানে যেন সবকিছু বদলে গেল। সেদিন ইডেনে শাহরুখ খানের উপস্থিতিতেই কলকাতাকে উড়িয়ে দিয়েছিল মুম্বাই। সমর্থকদের কাছে ক্ষমা চেয়ে টুইট করেন শাহরুখ। এরপর কী এমন ঘটল, আমূল পাল্টে গেল কলকাতা। মুম্বাইয়ের ওই ম্যাচের পর ইনদোরে পাঞ্জাবকে উড়িয়ে দেয়ার পর গতকাল সেই ইডেনেই রাজস্থান রয়্যালসকে হারিয়ে প্লে-অফের দারপ্রান্তে তারা। যদি পরবর্তী ম্যাচগুলোতে অঘটনের কিছু না ঘটে।

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) গতকাল দিনের একমাত্র ম্যাচে টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় কলকাতা নাইট রাইডার্স। কেকেআরের বোলারদের তোপের মুখে ১৯ ওভারে মাত্র ১৪২ রান তুলতেই অলআউট হয়ে যায় রাজস্থান রয়্যালস।

ব্যাটিংয়ের শুরুটা দারুণ করেন রাজস্থানের দুই ওপেনার জস বাটলার এবং রাহুল। দুইজন মিলে দলীয় পাঁচ ওভারেই তোলেন ৬১ রান। তবে পঞ্চম ওভারের শেষ বলেই রাসেলের বলে সাজঘরে ফেরেন রাহুল। ১৫ বলে ২৭ রান করেন তিনি। এর পরেই রানের গতি কমে যায়। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ২২ বল খেলে ৩৯ রান করেন বাটলার। তার ইনিংসটি সাজানো ছিলো ২টি ছক্কা আর ৫ বাউন্ডারিতে। আর শেষের দিকে ২৬ রান করেন উনাদকাট।

কলকাতার পক্ষে কুলদীপ যাদব ৪টি, প্রাসিধ কৃষ্ণা ও এন্ড্রু রাসেল ২টি এবং শিভম মাভি ও সুনিল নারাইন ১টি করে উইকেট লাভ করেন।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৬ উইকেট ও ১২ বল হাতে রেখেই জয় তুলে নেয় কলকাতা। শুরুর দিকে ৭ বলে ২১ রানের একটি ঝড়ো ইনিংস খেলেন সুনিল নারিন। যেখানে ইনিংসের প্রথম চার বলেই দুটি ছক্কা ও দুটি করে চার হাঁকান। প্রথম বলে ছক্কার পর দ্বিতীয় বলে চার। তৃতীয় বলে আবারো ছক্কার পর চতুর্থ বলে চার।

নারিন সাজঘরে ফিরলে আরেক ওপেনার ক্রিস লিনের ৪৫ আর পাঁচ নম্বরে নামা অধিনায়ক দিনেশ কার্তিকের অপরাজিত ৪১ রানে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় কেকেআর। লিন ৪২ বলে ৫ চার ও ১ ছক্কায় ৪৫ রান করেছেন। কার্তিকের ৩১ বলের ইনিংসে ছিল ১ ছক্কা ও ৫ চার।

রাজস্থানের পক্ষে বেন স্টোকস ৩টি, ইশ সোধি ১টি উইকেট লাভ করেন। আর ম্যাচ সেরা হন কলকাতার পক্ষে ৪ উইকেট পাওয়া কুলদীপ যাদব।

১৩ ম্যাচে ৭ জয় ও ৬ পরাজয়ে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের তৃতীয় স্থানে কেকেআর। রাজস্থান আছে চতুর্থ স্থানে। ১৩ ম্যাচে ৬ জয়ে তাদের পয়েন্ট ১২। ইতোমধ্যে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ ও চেন্নাই সুপার কিংসের প্লে-অফ নিশ্চিত হয়েছে। অপর দুই দলের জন্য অপেক্ষা এখন।

কমেন্টস

কমেন্টস