‘ভারতকে ক্ষতিপুরণ দিতেই হবে’

স্পোর্টস ডেস্কঃ

পাকিস্তান-ভারতের মধ্যে দ্বিপাক্ষীয় ক্রিকেট সিরিজ নিয়ে দ্বন্দ্ব নতুন নয়। এর সমাধান হচ্ছে না বলেই পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) আইসিসির বিরোধ নিষ্পত্তি কমিটির দ্বারস্থ হয়েছে। মামলা প্রসঙ্গে এই কমিটির সিদ্ধান্ত যাই হোক তা মেনে নেওয়ার ঘোষণাও দিয়েছে পিসিবি। তবে বিরোধে জিতলে ভারত-পাকিস্তানের দ্বিপাক্ষীয় সিরিজকে এফটিপির আওতায় আনতে বলেছেন পিসিবি চেয়ারম্যান নাজাম শেঠি। সম্প্রতি আইসিসির সভা শেষে পিসিবি চেয়ারম্যান জানান এফটিপিতে সই করেছে, তবে তা কিছু শর্তসাপেক্ষে।

শর্ত প্রসঙ্গে নাজাম শেঠি জানান, ‘আমরা সাফ জানিয়েছি, যদি বিরোধ নিষ্পত্তির এই কমিটি আমাদের পক্ষে রায় দেয়। তাহলে ভারতকে নতুন এফটিপির আওতায় আমাদের বিপক্ষে অবশ্যই খেলতে হবে।’

শেঠি জানিয়েছেন, তিনি শর্তসাপেক্ষে সই করেছেন আইসিসির সভায়। আর কলকাতার এই সভাতে নতুন এফটিপিকে একটি কাঠামোতে আনা হয়েছে। তবে এই সূচিতে ভারত-পাকিস্তানের দ্বিপক্ষীয় সিরিজের ম্যাচগুলো রাখা হয়নি।

২০১৪ সালে ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে হয়েছিল সমঝোতা চুক্তি, যদিও পরবর্তীতে তা মানেনি ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। তাই ক্ষতিপূরণ দাবিতে ইতোমধ্যে মামলা করে বসে আছে পিসিবি। যার আর্থিক মূল্য ৭০ মিলিয়ন ডলার। বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ৫৯০ কোটি ৫০ লাখ ৬০ হাজার টাকা।

করাচিতে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান জানান, ‘আইসিসির সমস্যা সমাধান কমিটি ভারত-পাকিস্তান দ্বিপাক্ষিক সিরিজ নিয়ে সিদ্ধান্ত জানাবে আগামী অক্টোবরে। যদি তা পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষে যায়, তা হলে ভারতকে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলতেই হবে। একই সঙ্গে ২০২৩ সাল পর্যন্ত ভারত-পাকিস্তান দ্বিপাক্ষিক সিরিজ অন্তর্ভুক্ত হবে আন্তর্জাতিক সফরসূচিতে। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের এই মনোভাব জানিয়ে দেওয়া হয়েছে বৈঠকে।’

পিসিবি চেয়ারম্যান আরও জানিয়েছেন, তারা এই মামলা জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী। যদিও বিসিসিআইয়ের দাবি সমঝোতা চুক্তি কখনও আইনি দলিল নয়।

কমেন্টস

কমেন্টস