‘ঈশ্বর আমাকে ছয় মারার যথেষ্ট শক্তি দিয়েছেন’ (ভিডিও)

স্পোর্টস ডেস্কঃ

আইপিএলে গতকাল ক্রিস গেইলের বদৌলতে ১৯৭ রানের বেশ ভালো সংগ্রহ গড়ে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব স্বস্তির নিশ্বাস ফেলেছিল। কিন্তু তাদের কপালে চিন্তার ছাপ ফেলে দেন চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে খেলতে নামা ধোনি। ধোনির ব্যাটিং ঝড়েই প্রায় হারতে বসেছিল পাঞ্জাব। তবে ৪ রানে জিতে কোনোরকমে ম্যাচ বাঁচায় তারা।

রোববার রাতে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের বিরুদ্ধে ৪৪ বলে ৭৯ রানের একটি বিধ্বংসী ইনিংস খেলে অপরাজিত থাকেন ভারতের সর্বকালের সেরা অধিনায়ক ধোনি। ৬টি চার ও ৫ ছক্কায় এই দৃষ্টিনন্দন ইনিংস উপহার দেন তিনি।

যে ইনিংসে তার বয়সের ছাপ একটুও চোখে পড়েনি। ৩৬ বছর বয়সী ধোনি যে এখনো ফুরিয়ে যাননি, সেটা প্রমাণ দিয়েছেন এই ইনিংসের মাধ্যমেই। ভারতের সবচেয়ে সফল এই অধিনায়ক টেস্ট থেকে বিদায় নিয়েছেন অনেক আগেই। ওয়ানডে দলে কালেভদ্রে তাঁর ব্যাট হেসে ওঠায় শঙ্কিত পুরো দল। অস্তিত্ব সংকটে পড়ে যাবেন কি না এই সাবেক সফল তারকা—এমন অনিশ্চয়তাও দেখা দিয়েছে ভারতীয় দলে। তাছাড়া ভারতের বর্তমান দলে আছেন শক্তিশালী অনেক ব্যাটসম্যান, যেখানে ফর্মহীনতা যে কাউকে দল থেকে ছিটকে দিতে পারে।

তবে ধোনি প্রমাণ করে দিয়েছেন, তিনি এখনো ফুরিয়ে যাননি। ৩৬ বছর বয়সেও দলকে দেওয়ার মতো এখনো যে অনেক কিছুই বাকি, গতকাল ম্যাচে এমন ইঙ্গিত দিলেন ভারতের এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান।

রোববার রাতের ঐ ম্যাচ চলাকালীন কোমরে চোট পান চেন্নাই সুপার কিংসের অধিনায়ক। খেলা চলাকালীন মাঠের মধ্যেই ফিজিওর কাছ থেকে চিকিৎসা নিতে হয় মাহিকে। কোমরে ব্যথা উঠলেও থামেনি ধোনির ব্যাট। ম্যাচের শেষ ওভারে এক হাতেই ছক্কা হাঁকান ‘মিস্টার কুল’।

ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে কোমরে চোট থাকা সত্ত্বেও ছয় মারার বিষয়ে ধোনিকে প্রশ্ন করা হলে হাসতে হাসতে উত্তর দেন, ‘ঈশ্বর আমাকে ছয় মারার যথেষ্ট শক্তি দিয়েছেন।’

মাঠের মধ্যেই ধোনির ম্যাসাজ নেওয়া এবং পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে এসে দেওয়া ইন্টারভিউয়ের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়। সমর্থকরা ধোনির এই অনবদ্য ইনিংসের পাশাপাশি হার না মানা মনোভাবের প্রশংসা করেন।

ভিডিও লিংকঃ

কমেন্টস

কমেন্টস