জাঙ্গিয়া-বুট পেতে আগামীর মেসিরা যৌন নির্যাতনের শিকার!

স্পোর্টস ডেস্কঃ

মেসির মতো তারাও একদিন সুপারস্টার হবে, চোখেমুখে জ্বলজ্বল করছে তাদের সেই স্বপ্ন। ফুটবল জাদুতে একদিন বিশ্ব মাত করবে এই স্বপ্নে বিভোর তারা। তারা আর কেউ নয়, একঝাক ফুটবল পাগল কিশোর। বয়স ১৩ থেকে ১৯ বছর। কিন্তু সেই স্বপ্ন পূরণে নামি ক্লাবে প্রশিক্ষণ নিতে গিয়ে দুঃসহ যৌন নিপীড়নের শিকার হচ্ছে কিশোররা। একজোড়া বুট ও একটি জাঙ্গিয়া পেতে তাদের যৌন সম্পর্কে লিপ্ত হতে হচ্ছে।

হ্যাঁ সত্যিই তাই, মেসির দেশ আর্জেন্টিনাতে এমন ভয়াবহ ঘটনা ঘটেছে। দেশটির অন্যতম সফল ও নামিদামি ফুটবল ক্লাব ইন্দিপেনদিয়েন্তিতেই যৌন নিপীড়নের শিকার হচ্ছে কিশোররা। সেখানে কিশোরদের ফুটবল খেলার প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। যাদের কিনা প্রত্যেকের বয়স ১৩-১৯ বছরের মধ্যে। নানা সময়ে নানাজনের সঙ্গে তাদেরই যৌন সম্পর্কে মিলিত হতে হয়। বিনিময়ে মেলে একজোড়া বুট ও একটি জাঙ্গিয়া।

আরও জানা গেছে, ক্লাবটির কয়েকজন অসাধু কর্মকর্তা এই অবাধ যৌনতায় ইন্ধন দিয়েছেন। তারা নিজেরা ছাড়াও যৌন অপরাধের বিভিন্ন নেটওয়ার্কও এর সঙ্গে জড়িত। কয়েক দিন আগে এ খবর প্রকাশ্যে আসে। এর পর গ্রেফতার করা হয় রেফারি মার্টিন বুসটোস ও তার আইনজীবীকে।

এদিকে রাষ্ট্রপক্ষ কিশোরদের যৌন নিপীড়ন নিয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে। এর অংশ হিসেবে অর্ধশতাধিক কিশোরের সাক্ষাৎকার নেন রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি মারিয়া সোলেদাদ গ্যারিবাল্দি। সাক্ষাৎকালে কিশোরদের কাছে ক্লাবটির বোর্ডিং সুযোগ-সুবিধা জানতে চাওয়া হয়। তখন তারা যৌন নিপীড়নের অভিযোগের সত্যতার কথা নিশ্চিত করে।

কমেন্টস

কমেন্টস