মেসির ‘দেশপ্রেমে ঘাটতি আছে’

স্পোর্টস ডেস্কঃ

আন্তর্জাতিক ব্রেকের পর লা লিগায় সেভিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচ খেলবে বার্সেলোনা। এদিকে হ্যামস্ট্রিংয়ের চোটের জন্য ইতালি ও স্পেনের বিরুদ্ধে প্রীতি ম্যাচে খেলেননি লিও মেসি। মাদ্রিদে স্পেনের কাছে ১-৬ গোলের পরাজয় গ্যালারিতে বসে দেখতে হয়েছে তাকে। ওই ম্যাচের পর বিশেষ বিমানে আন্দ্রে ইনিয়েস্তা, জর্ডি আলবাদের সঙ্গে বার্সেলোনায় ফেরেন মেসি। বৃহস্পতিবার টিটো ভিলানোভা ট্রেনিং সেন্টারে তিনি অনুশীলনও করেছেন। তবে তার চোট নিয়ে তৈরি হয়েছে ধোঁয়াশা।

বার্সেলোনার কোচ আর্নেস্তো ভালভার্দে অবশ্য বলছেন, ‘মেসির চোট গুরুতর নয়। সেভিয়ার সাথে মেসি খেলতে পুরো প্রস্তুত।’

কিন্তু আর্জেন্টিনা কোচ সাম্পাওলি মনে করেন, পরপর দুটি আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে না খেলার পর যদি শনিবার সেভিয়ার বিরুদ্ধে মেসি খেলেন তাহলে আর্জেন্টিনার সংবাদমাধ্যম তার সমালোচনায় মুখর হবে।

শেষ পর্যন্ত তাই হলো, আর্জেন্টিনা দলের সাবেক ফুটবলার হুগো গাত্তি ভীষণ খেপেছেন মেসির এই অনুপস্থিতিতে। চোট থাকলেও দেশের কথা ভেবে এই ম্যাচগুলোতে বার্সা তারকা খেলতে পারতেন, এমন মত তার। মেসির চিরপ্রতিদ্বন্দ্বি ক্রিশ্চিয়ানো হলে এমন পরিস্থিতিতে দেশের জন্য দুই ম্যাচই খেলে ফেলতেন বলে মনে করছেন তিনি।

মেসির চোটটা খুব বড় ছিল না। স্পেনের বিপক্ষে ম্যাচটা খেলার কথাও ছিল তার। কিন্তু শেষ মুহূর্তে দলের সেরা তারকাকে নিয়ে ঝুঁকি নিতে চাননি আর্জেন্টিনার কোচ হোর্হে সাম্পাওলি, মেসিও নিজের থেকে খেলেননি।

হুগো গাত্তি পুরো বিষয়টিকেই ভীষণ নেতিবাচক হিসেবে দেখছেন। আর্জেন্টিনা দলের সাবেক এই গোলরক্ষক তো রীতিমতো রোনালদোর সঙ্গে মেসির মানসিকতারও তুলনা করলেন। তিনি বলেন, ‘মেসির খেলা উচিত ছিল। মানুষ তোমাকে দেশপ্রেমিক হিসেবে মনে করেছিল, কিন্তু তুমি তা নও। ক্রিশ্চিয়ানো হলে এমন পরিস্থিতিতে অবশ্যই দেশের হয়ে খেলতো।’

তবে মেসি না খেলাতেই আর্জেন্টিনার এই বিপর্যয়, সেটাও মানতে চাইছেন না গাত্তি। বরং তারকা এই ফুটবলারকে ঘিরেই যে সাম্পাওলির সব গেম প্লেন, সেটারই সমালোচনা করেছেন তিনি, ‘আমি মনে করি না, মেসি একাই এই দলটা গড়েছে। আমি এসব বিষয়ে বিশ্বাস করি না।’

কমেন্টস

কমেন্টস