এবার আসলো ‘৩৬০ ডিগ্রি’ বোলার (ভিডিও)

স্পোর্টস ডেস্কঃ 

ক্রিকেটে ‘৩৬০ ডিগ্রি’ বলতে সবাই এবি ডি ভিলিয়ার্সকেই বুঝে নেয়। উইকেটের চারপাশেই শট খেলতে সিদ্ধহস্ত হওয়ায় তকমাটি পেয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক এই ব্যাটসম্যান। এবার বোলিংয়েও ডি ভিলিয়ার্সের মতো একজন ‘৩৬০ ডিগ্রি’ ক্রিকেটারের খোঁজ পাওয়া গেছে। যিনি বল ছাড়ার আগে ৩৬০ ডিগ্রি কোণে চক্রাকারে ঘোরেন।

ভারতের অনূর্ধ্ব-২৩ রাজ্য দলগুলো নিয়ে ঘরোয়া টুর্নামেন্ট সি.কে নাইড়ু টুর্নামেন্টে এই বোলারের খোঁজ মিলেছে। চার দিনের ম্যাচটি ছিল বেঙ্গল ও উত্তর প্রদেশের মধ্যে। তৃতীয় দিনে বেঙ্গলের দ্বিতীয় ইনিংসে বোলিংয়ে এসে তাক লাগিয়ে দেন উত্তর প্রদেশের বাঁ হাতি স্পিনার শিবা সিং। অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী ভারতীয় দলের এই স্পিনার নিজের রান আপেই ৩৬০ ডিগ্রি কোনো ঘুরে তারপর ডেলিভারি ছাড়েন। কিন্তু উত্তর প্রদেশের খেলোয়াড়দের অবাক করে দিয়ে ‘ডেড বল’ ঘোষণা দেন মাঠের আম্পায়ার।

আম্পায়ার ‘ডেড বল’ ঘোষণা করায় খেলা কিছুক্ষণের জন্য থেমে ছিল। দুই আম্পায়ার আলোচনার পর উত্তর প্রদেশের অধিনায়ককে জানিয়ে দেন, পরের বলটি একইভাবে করলেও ‘ডেড বল’ ডাকা হবে। ক্রিকইনফোকে শিবা জানিয়েছেন, গত মাসে ভারতে বড়দের ওয়ানডে টুর্নামেন্টে বিজয় হাজারে ট্রফিতেও একই অ্যাকশনে বোলিং করেছেন তিনি। কিন্তু ওখানে আম্পায়াররা ‘ডেড বল’ ডাকেনি। কোনো বাধা ছাড়াই বোলিং করেছেন। শিবার আক্ষেপ, ‘রিভার্স সুইপ কিংবা সুইচহিট দিয়ে বোলারদের চমকে দিতে পারে ব্যাটসম্যান। কিন্তু বোলাররা এমন কিছু করতে গেলেই ডেড বল ডাকা হয়।’

শিবার এই বিচিত্র রান আপের বোলিং আলোচনার জন্ম দিয়েছে ক্রিকেটমহলে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও আলোচনা চলছে। তাঁর বোলিংয়ের ভিডিও পোস্ট করে ভারতের সাবেক স্পিনার বিষেন সিং বেদির টুইট, ‘পাগলাটে…ভালো করে খেয়াল করে দেখুন।’ টুইট করেছেন ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক মাইকেল ভনও, ‘ভালো লেগেছে। আমরা সব সময় বলে থাকি বোলারদেরও উদ্ভাবনী ক্ষমতা দেখাতে হবে।’

ক্রিকেটবিশ্ব এর আগে দুই হাতেই বোলিংয়ে পারদর্শী পেসার ও স্পিনার দেখেছে। আবার রান আপের সময় থেমে যাওয়া বোলারও দেখেছে। কিন্তু বল ছাড়ার আগে রান আপে ৩৬০ ডিগ্রি কোণে একবার ঘুরে তারপর ডেলিভারি দেওয়ার কৌশলটা সত্যিই চমকপ্রদ। তবে এই অ্যাকশন বৈধ না অবৈধ না সময় হলেই জানা যাবে।

দেখে নিন শিবা সিংয়ের ‘৩৬০ ডিগ্রি’ অ্যাকশনের বোলিংঃ 

কমেন্টস

কমেন্টস