সালাহকে সম্মান নাকি অপদস্ত করতেই এমন হাল!

স্পোর্টস ডেস্কঃ

আর্জেন্টিনায় একসময়ের ফুটবল কিনবদন্তি ডিয়েগো ম্যারাডোনা ও বর্তমান সময়ের সেরা খেলোয়াড় লিওনেল মেসির মূর্তি হয়েছে।পর্তুগালে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর মূর্তি হয়েছে। সেই তালিকায় এবার ঢুকে পড়লেন মিশরের মোহাম্মদ সালাহ। সেটি হওয়াই স্বাভাবিক, কারণ বিশ্ব ফুটবলে এখন মেসি-রোনালদোর পর্যায়ে না পৌঁছাতে পারলেও সমর্থকদের কাছে সালাহ উপরের দিকেই।

ভক্তদের অনেকেই সালাহকে বর্ণনা করেন মিশরীয় মেসি হিসেবে। তাই তার মূর্তি তৈরি হবে সেটাই স্বাভাবিক। কিন্তু মিশরের মেসির মূর্তি দেখে হাসছে ফুটবল বিশ্ব। এমনকি খোদ সালাহর ভক্তরাও সেই তালিকায় আছেন।

কেন হাসছে সবাই? শার্ম এল শেইখে এক ইয়ুথ ফোরাম আয়োজিত হয়েছিল। সেখানেই সালাহর এই মূর্তি উন্মোচন হয়েছে। মাথাটা ঠিকঠাক হলেও, শরীরের পুরো অংশটা অদ্ভূত রকমের ছোট। ঠিক যেন কোনও বাচ্চার। আর এখানেই প্রশ্ন। এমন কেন?

ছবি ভাইরাল হতেই খোঁচাখুঁচি শুরু হয়ে গেল। একজন সালাহ ভক্ত যেমন লিখেছেন, ‘নিশ্চয়ই মাথা তৈরি করতে গিয়েই সব উপকরণ শেষ হয়ে গিয়েছিল। সালাহর শরীর তাই আট বছরের বাচ্চার মতো করে দেওয়া হয়েছে।’ সালাহর এই অদ্ভূত মূর্তি তৈরি করেছেন শিল্পী আবদেল আল্লাহ। শিল্পীর মুণ্ডুপাতও করতে ছাড়ছেন না কেউ কেউ।

বছরখানেক আগে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর একটি মূর্তি ঘিরে এমনই বিতর্ক তৈরি ছিল। সমর্থকদের দাবি ছিল, রোনালদোর মূর্তিটি আর যাই হোক পর্তুগাল সুপারস্টারের মতো দেখতে হয়নি। শেষ পর্যন্ত সেই মূর্তি ভেঙে নতুন করে তা তৈরি করতে হয়েছিল। সালাহ’র ক্ষেত্রেও কী সেই পথেই হাঁটতে হবে কর্তৃপক্ষকে? ইঙ্গিত তেমনটাই মিলছে।

কমেন্টস

কমেন্টস