ম্যাচ ফিক্সিং নিয়ে আল-জাজিরার চাঞ্চল্যকর ভিডিও প্রকাশ (ভিডিও)

স্পোর্টস ডেস্কঃ

সম্প্রতি আন্তর্জতিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ‘ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল’ (আইসিসি) এর প্রতি ম্যাচ ফিক্সিংয়ের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নেয়ার অভিযোগ এনেছে।

ভারতীয় কুখ্যাত ‘ম্যাচ ফিক্সার’ অনিল মুনাওয়ারের বিরুদ্ধে ১৫টি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচে ২৬ বার স্পট ফিক্সিংয়ের তথ্যপ্রমাণ তুলে ধরার পরেও আইসিসি কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। এছাড়া আইসিসি অনিলের সম্পর্কে ২০১০ সাল থেকে অবগত থাকার পরেও তার কোনো ব্যবস্থা না নেয়ায়, আসলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার মতো ক্ষমতা আইসিসির আছে কিনা তা নিয়েও সন্দেহ প্রকাশ করা হয়েছে।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ম্যাচ ফিক্সিং নিয়ে আল-জাজিরা দীর্ঘ অনুসন্ধান চালায়। চলতি বছরের ২৭ মে দুটি, ২৮ মে ১টি, ১ জুন ১টি, ২১ অক্টোবর ৩টি এক্সক্লুসিভ প্রতিবেদন প্রকাশ করে তারা। এসব প্রতিবেদনে ভারতের কুখ্যাত ‘ম্যাচ ফিক্সার’ অনিল মুনাওয়ারের নাম ও তথ্য প্রকাশ করা হয়। প্রতিবেদনে, বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটারদের সঙ্গে তার মিটিংয়ের ছবি, অডিও এবং ভিডিও প্রকাশ করা হয়।

সর্বশেষ গত ২১ অক্টোবর ‘ক্রিকেটস ম্যাচ ফিক্সারস: দ্য মুনাওয়ার ফাইলস’ নামে একটি ডকুমেন্টারি প্রকাশ করে আল-জাজিরা। ওই ডকুমেন্টারিতে বলা হয়েছে, ২০১১-১২ মৌসুমে মোট ১৫টি ম্যাচে ২৬ বার স্পট ফিক্সিং করা হয়েছিল। এর মূল হোতা ছিল অনিল মুনাওয়ার।

এর মধ্যে ৭টি ম্যাচে কয়েকজন ইংরেজ খেলোয়াড়, ৫টি ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ান খেলোয়াড়, ৩টি ম্যাচে পাকিস্তানি খেলোয়াড় ও ১টি ম্যাচে অন্যান্য দেশের খেলোয়াড়রা জড়িত ছিল। অভিযুক্ত ১৫টি ম্যাচের মধ্যে রয়েছে ২০১১ সালে ভারত বনাম ইংল্যান্ড লর্ডস টেস্ট, ২০১১ সালের অস্ট্রেলিয়া বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা কেপটাউন টেস্ট, ২০১২ সালে পাঁচটি ওয়ানডে ও তিনটি টি-২০ ম্যাচ।

ডকুমেন্টারিটি প্রচার হওয়ার পরপরই আইসিসির দুর্নীতি দমন শাখার জেনারেল ম্যানেজার অ্যালেক্স মার্শাল জানান, ক্রিকেটের ভাবমূর্তি স্বচ্ছ রাখতে আমরা বদ্ধপরিকর। আমরা ওই সংবাদ সংস্থার ভিডিও ফুটেজ দেখব। আমরা তাদের কাছ থেকে সব রকম সহযোগিতা চেয়েছি। আমরা শীঘ্রই এ বিষয়ে তদন্ত শুরু করব।

কিন্তু আইসিসির এই বক্তব্যের বিপরীত বক্তব্য দিয়েছে আল-জাজিরা। তারা ওই ডকুমেন্টারিতে বলেছে, আইসিসির কাছে অনিল মুনাওয়ারের সম্পর্কে সব তথ্যই আছে। তারা সবই জানে। কিন্তু আইসিসি তার (অনিল) বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ নেয়নি।

ডকুমেন্টারিতে অনিল মুনাওয়ারের সঙ্গে বিরাট কোহলি ও রোহিত শর্মাকেও দেখা গেছে। তবে অনিলের সঙ্গে একই ফ্রেমে থাকলেও ভারতীয় তারকাদের এই ম্যাচ ফিক্সিংয়ে জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া যায়নি বলে দাবি উল্লেখ করেছে আল-জাজিরা।

ভিডিও লিঙ্কঃ

কমেন্টস

কমেন্টস