ম্যানইউর সাথে চেলসির নাটকীয় ড্র

স্পোর্টস ডেস্কঃ

চেনা মাঠ, চেনা শিষ্য তবুও ম্যাচটা ছিল মরিনহোর জন্য চাপের। স্টামফোর্ড ব্রিজের ম্যাচের আগে তার চাকরি যাওয়া নিয়ে ছিল গুঞ্জন। আবার চেলসি তার কাছে অজেয় দল হয়ে উঠেছে গেল ক’বছর। চারবার নিজের সাবেক ক্লাবে ফিরে জয়হীন থাকতে হয়েছে তাকে। এবারও তাই মরিনহোর ভয় ছিল। তাতে ম্যাচের প্রথমার্ধে মরিনহোর চাকরি নিয়ে টানাটানিই পড়ে যায়। আর দ্বিতীয়ার্ধে মরিনহোর চেলসি জয় এবং টেবিলের শীর্ষ দলকে হারানোর তৃপ্তি চলে আসে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত চেলসি ম্যাচটি সমতায় শেষ করেছে।

প্রথমার্ধে ২১ মিনিটের মাথায় গোল দিয়ে এগিয়ে যায় চেলসি। রুডিগারের করা গোলে এগিয়ে থেকে প্রথমার্ধ শেষ করে ব্লুসরা। এরপর দ্বিতীয়ার্ধ নিজেদের করে নেওয়ার ইঙ্গিত দেয় সাবেক রিয়াল মাদ্রিদ এবং চেলসি কোচ। ম্যাচের ৫৫ মিনিটে সমতা সূচক গোলটি করেন ফ্রান্স ফরোয়ার্ড অ্যান্তনিও মার্শিয়াল। এরপর আবার গোল করেন ফ্রান্সের তরুণ এই তারকা। তার ৭৩ মিনিটের গোলে ২-১ গোলে এগিয়ে যায় ম্যানইউ।

ওই গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ার অপেক্ষায় ছিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। কিন্তু ম্যাচের রোমাঞ্চ তখন শেষ সময়ের জন্য জমানো। যোগ করা সময়ে ৯৬ মিনিটে গোল করেন চেলসির বার্কলি। তার গোলে সমতায় ফেরে চেলসি। ব্লুসরা ঘরের মাঠে রেডসদের বিপক্ষে হার এড়ায়। মাঠ ছাড়ে ২-২ গোলের সমতা নিয়ে।

পয়েন্ট টেবিলে চেলসি শীর্ষে আছে। দুই এবং তিনে থাকা ম্যানসিটি এবং লিভারপুলেরও চেলসির সমান পয়েন্ট। কিন্তু গোল ব্যবধানে এগিয়ে চেলসি। ম্যানইউয়ের বিপক্ষে সমতা তাই তাদের মূল্যবান পয়েন্ট এনে দিয়েছে। চলতি মৌসুমে ব্লুসরা তাদের অপরাজিত থাকার রেকর্ডও ধরে রেখেছে।

কমেন্টস

কমেন্টস