আঙুলের চোট নিয়েই ভারতের সাথে লড়বেন মাশরাফি

স্পোর্টস ডেস্কঃ

সুপার ফোরের বাঁচা-মরার শেষ ম্যাচে বুধবার (২৬ সেপ্টেম্বর) পাকিস্তানকে হারিয়ে এশিয়া কাপের ফাইনালে ওঠার ম্যাচে শোয়েব মালিককে ফেরানো অসাধারণ ক্যাচটি নেয়ার সময় আঙ্গুলে চোট পান বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি। রুবেল হোসেনের বলে শর্টমিড উইকেটে অবিশ্বাস্য ক্ষিপ্রতায় শূন্যে ভেসে ক্যাচ নেন মাশরাফি।

বলের আঘাতে একটু নড়ে গিয়েছিল ডান হাতের কনিষ্ঠার হাড়। নিজেই একটানে ঠিক জায়গায় বসিয়ে দিয়েছেন। কেটে গেছে আঙুল, ব্যথা তো আছেই। ছোটখাটো চিড়ও থাকতে পারে। কিন্তু কোনো কিছুকেই পাত্তা দিচ্ছেন না মাশরাফি বিন মুর্তজা। আঙুলের হাল যা-ই হোক না কেন, টাইগারদের অধিনায়ক ভাবছেন শুধুই ফাইনাল নিয়ে।

ক্যাচটি নেয়ার পর উঠে দাঁড়িয়েছিলেন তখনই। বাঁ হাতে বলটি উঁচিয়ে ধরে দাঁড়িয়েছিলেন মূর্তির মতো। ক্যাচের মতোই দর্শনীয় উদযাপন। তবে মাঠ ছেড়েছেন আঙুল চেপে ধরে। কিছুক্ষণ পর আঙুলে ব্যান্ডেজ নিয়ে আবার ফিরেছেন মাঠে। বোলিং করেছেন। ফিল্ডিংয়ে ঝাঁপিয়েছেন। ওই আঙুলে আবার ব্যথা পেয়েছেন। তবু দলের জয় সঙ্গে নিয়েই ছেড়েছেন মাঠ।

দেড় যুগের ক্যারিয়ারে চোটের সঙ্গে নিত্য বাস করতে করতে ধরনগুলোও খুব ভালো বোঝেন মাশরাফি। অনেক সময় হাত বুলিয়েই বুঝে নিতে পারেন চোটের অবস্থা। গণমাধ্যমকে তিনি বলেন, শোয়েব মালিকের শটে জোর ছিল বেশ। বাঁ হাতে জমে যাওয়ার আগে ডান হাতেও ছুঁয়ে গেছে। তখনই বুঝেছি, ডিসলোকেট হয়েছে। টেনে ঠিক করে দিয়েছি। ব্যথা আছে বেশ। ফিজিও আঙুল দেখে বলেছেন, ছোটখাটো চিড় থাকতে পারে। স্ক্যান করালে হয়তো বোঝা যাবে।

‘তবে আমি এখন এটি নিয়েই ভাবছি না। ফাইনাল তো খেলতে হবেই। এটি নিয়ে ভাবলেই বাড়তি একটি যন্ত্রণা যোগ হবে,’ বললেন বাংলাদেশের অধিনায়ক। কিন্তু যদি চিড় সত্যিই থাকে? প্রশ্ন শুনে হাসলেন অধিনায়ক, সাকিব ভাঙা আঙুল নিয়ে এতগুলো ম্যাচ খেলে গেল, আমি একটি ফাইনাল পারব না?

কমেন্টস

কমেন্টস