তিন ‘নাই’ এর সমাধানে রাজপথে নামছে বিএনপি

ডেইলি মিরর ২৪ ডেস্কঃ 

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘দেশে আইন নাই, আদালত নাই, বিচার বিভাগ নাই। কোথায় যাবেন আপনারা? আমাদের পথ একটাই, আর তা হলো রাজপথ। এ কথা বলে, নেতাকর্মীদের ‘রাজপথে নামার প্রস্তুতি’ নেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

একমাত্র রাজপথের মধ্যেই জনগণকে সঙ্গে নিয়ে সব সমস্যার সমাধান হবে বলে বিশ্বাস করি। রাজপথই হচ্ছে একমাত্র বিকল্প। সকলকে মেরুদণ্ড শক্ত করে উঠে দাঁড়াতে হবে। যারা জোর করে ক্ষমতায় থাকতে চায় জনগণ তাদের অবশ্যই টেনে-হিঁচড়ে নামাবে।’

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়সহ সব নেতাকর্মীর মুক্তির দাবিতে এ সভার আয়োজন করে ‘বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান কল্যাণ ফ্রন্ট’।

মির্জা ফখরুল আরও বলেন, ‘আজকে আমাদের বিরুদ্ধে চতুর্দিক থেকে সরকার ষড়যন্ত্র চালাচ্ছে। পত্র-পত্রিকায় নিজেরাই লেখালেখি করাচ্ছে। ফেসবুকে বিভিন্ন রকম অপপ্রচার চালাচ্ছে। বিএনপির নেতৃত্বের মধ্যে ভাঙন সৃষ্টি করতে তারা এটা করছে।

তারা প্রমাণ করতে চাইছে যে, বিএনপি ভেঙে যাচ্ছে। কিন্তু শকুনের দোয়ায় গরু মরবে না! খালেদা জিয়া কারাগারে যাওয়ার পর দলটির ঐক্যের জায়গা আরও মজবুত হয়েছে। আরও বেশি শক্তিশালী হয়েছে। নেতাদের মধ্যে কোনো ধরনের বিভেদ নেই।’

গ্রেফতারের পর সরকার বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে ‘মনুষ্যত্বহীন’ আচরণ করছে অভিযোগ করে তিনি আরও বলে্নার’এদের দয়া নেই, মায়াও নেই। এরা নৃশংসতম, বর্বরতম শাসকগোষ্ঠীতে পরিণত হয়েছে। এদের কাছে মনুষ্যত্ব, জীবন-প্রাণের কোনো মূল্য নেই।’

আপনারা দেখেছেন, সেদিন ছাত্রনেতা রাজ বাঁচার জন্য আমাকে আঁকড়ে ধরেছিল! ছেলেটাকে রক্ষা করতে পারিনি বলে সারা রাত ঘুমাতে পারিনি। এটা আমার ব্যর্থতা। আপনারা এই ক্ষোভ-ব্যথা-যন্ত্রণাকে শক্তিতে পরিণত করুন।

বিএনপি মহাসচিব আবারও বলেন, ‘এই যে কথায় কথায় আমাদের ভাইদের হত্যা করছে, ছেলেদেরকে হত্যা করছে, এদের বিরুদ্ধে উঠে দাঁড়ান। জনগণকে বলেন—উঠে দাঁড়াতে, রাজপথে নামতে। এটাই একমাত্র পথ, আমাদের কাছে বিকল্প কোনো পথ নেই।’

আয়োজক সংগঠনের আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট গৌতম চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন বিএনপি নেতা নিতাই রায় চৌধুরী, সুকোমল বড়ূয়া, নিপুন রায় চৌধুরী প্রমুখ।

কমেন্টস

কমেন্টস