মেকআপ ওয়াইপ কী ত্বকের জন্য সুরক্ষিত?

ডেইলি মিরর ২৪ ডেস্কঃ

অনেকেই নিয়মিত ব্যবহার করেন মেকআপ রিমুভিং ওয়াইপ বা ওয়েট টিস্যু। খুব কম সময়ের মাঝে মেকআপ তুলে ফেলতে এসব ওয়াইপের জুড়ি নেই। কিন্তু এগুলো কি আসলে আপনার ত্বকের জন্য ভালো?

আসলে কিন্তু মেকআপ ওয়াইপের কারণে আপনার ব্রণ, ত্বকে জ্বালাপোড়া এমনকি অ্যালার্জিও হতে পারে। তারমানে এই নয় যে মেকআপ ওয়াইপ ব্যবহার বন্ধ করে দিতে হবে।

জেনে রাখুন মেকআপ ওয়াইপ ব্যবহারের কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য-

-প্রথমত, মেকআপ ওয়াইপ ত্বক পরিষ্কার করতে খুব একটা কার্যকরী নয়। মেকআপ ওয়াইপ মূলত মেকআপ দূর করে। এর পাশাপাশি ত্বকে অল্প কিছু ময়লা দূর করে, কিন্তু সবটা নয়। আপনি যদি মেকআপ ওয়াইপ ব্যবহারের পর মুখ না ধুয়েই ঘুমিয়ে যান, তাহলে এই ময়লা ত্বকে রয়েই যায়। ত্বক থেকে তেল দূর করতেও এসব ওয়াইপ খুব একটা কার্যকর নয়। ফলে দিনের পর দিন মুখ না ধুয়ে শুধু ওয়াইপ ব্যবহার করলে রোমকূপ বন্ধ হয়ে ব্রণের উৎপাত হতে পারে।

-মেকআপ ওয়াইপের আরও একটি সমস্যা হলো, এসব টিস্যুতে থাকে কিছু রাসায়নিক, যেমন সলিউবলাইজার ও ইমালসিফায়ার। মেকআপ ওয়াইপ ব্যবহার করে মুখ মোছার পর এই রাসায়নিক ত্বকেই থেকে যায়। এতে ত্বকে শুষ্কতা, সংবেদনশীলতা এমনকি অ্যালার্জি হতে পারে। ত্বকে থাকা এই রাসায়নিক উল্টো ত্বকে আরও ময়লা আটকে ফেলে।

-এছাড়াও কিছু কিছু মেকআপ ওয়াইপ ত্বকের জন্য বেশ রুক্ষ হয়। এই ওয়াইপ দিয়ে ত্বক ঘষলে ত্বকের ক্ষতি হতে পারে।

-মেকআপ ওয়াইপের শেলফ লাইফ লম্বা করার জন্য এতে বেশিরভাগ সময়েই বেশি পরিমাণে প্রিজারভেটিভ দেওয়া থাকে। এতেও ত্বকের ক্ষতি হয়।

-যেসব মেকআপ ওয়াইপে থাকে ২-ব্রোমো-২-নাইট্রোপ্রোপেন-১,৩-ডাইঅল, সেসব ওয়াইপ ব্যবহার না করাই ভালো। এই রাসায়নিক থেকে তৈরি হয় ফরমালডিহাইড, যা ত্বকের ক্ষতি করে। এমন আরও একটি রাসায়নিক হলো আয়োডোপ্রোপিনিল বিউটাইলকারবামেট, যা নিঃশ্বাসের সাথে শরীরে প্রবেশ করলে ক্ষতি হতে পারে। অন্যদিকে, ফেনক্সিইথানল একটি নিরাপদ উপাদান।

-যেসব মেকআপ ওয়াইপের প্যাকেটে অনেক লম্বা উপাদানের লিস্ট থাকে, সেগুলো এড়িয়ে যাওয়াই ভালো। অ্যালো, প্যানথেনল ও গ্লিসারিন সমৃদ্ধ মেকআপ ওয়াইপ ব্যবহার করাটা ত্বকের জন্য উপকারী হতে পারে।

-তবে সব ধরণের ত্বকে একটি মেকআপ ওয়াইপ উপকারী হবে, এমনটা বলা যায় না। যাদের ত্বক তৈলাক্ত ও ব্রণ বেশি হয়, তাদের ত্বকে মেকআপ ওয়াইপ ভালো কাজ করে। যাদের ত্বক শুষ্ক, তাদের মেকআপ ওয়াইপ ব্যবহার না করাই ভালো।

-তবে মেকআপ ওয়াইপ যতই ভালো হোক না কেন, মুখ ধোয়ার আসলে কোনো বিকল্প নেই। মেকআপ ওয়াইপ ব্যবহার করলেও এরপর মুখ ধুয়ে নেওয়া উচিত।

কমেন্টস

কমেন্টস