খালি পেটে যেসব খাবার একেবারেই খাওয়া ঠিক নয়

ডেইলি মিরর ২৪ ডেস্কঃ

কিছু খাবার আছে যা খুবই স্বাস্থ্যকর, কিন্তু খালি পেটে খাওয়া উচিত নয়। কারণ খাওয়ার আগে আমরা কি করছি তার প্রভাব শরীরের ওপরে পড়ে। সম্প্রতি একটি গবেষণায় বলা হয়েছে, কিছু খাবার রয়েছে যা খালি পেটে খাওয়া একদম ঠিক নয়। এই খাবারগুলো এসিড তৈরি করে এবং অন্ত্রে সমস্যা তৈরি করতে পারে।

ঘুম থেকে উঠে কেউ খালি পেটে পানি পান করেন, কেউ আবার চা বা কফি। কিন্তু আপনি হয়তো জানেন না যে, খালি পেটে কোন খাবারগুলো খাওয়া উচিত নয়। আরও জেনে নিন-

কফি-চা

খালি পেটে কফি খাওয়া খুবই ক্ষতিকর। কফির মধ্যে থাকা ক্যাফেইন পাকস্থলির জন্য ভালো নয়। তাই খেতে হলে আগে অন্তত একগ্লাস পানি খেয়ে নিন। চা-ও কফির মতো, খালি পেটে খাওয়া ঠিক নয়। চায়ের মধ্যে রয়েছে উচ্চ মাত্রায় এসিড যা পাকস্থলির আবরণকে ক্ষতিগ্রস্ত করে।

পেস্ট্রি বা অন্যান্য ইস্ট যুক্ত খাবার

সকালে উঠেই খালি পেটে পেস্ট্রি বা প্যাটিস, পাউরুটি বা যে সমস্ত খাবারে ইস্ট আছে, সেগুলো এড়িয়ে চলুন। এই খাবারগুলি আপনার শরীরের ইস্টের মাত্রাকে স্বাভাবিকভাবেই বাড়িয়ে দেয়। তাছাড়া ইস্ট আপনার শরীরে গ্যাস্ট্রিকের সমস্যাকেও বাড়িয়ে তোলে আর গ্যাস-অম্বলের প্রবণতাকেও বাড়ায়।

মিষ্টি

মিষ্টি খেতে তো বাঙালী মাত্রেই ভালবাসে। আপনিও যে ভালবাসেন তা জানি। কিন্তু সকালে খালি পেটে মিষ্টি? কক্ষনো না। মিষ্টি আপনার শরীরে ইনসুলিনের মাত্রাকে বাড়িয়ে দেয়, যার ফলে আপনার অগ্ন্যাশয়ের ওপর চাপ পড়ে। এর ফলে আপনার ডায়াবেটিসও হয়ে যেতে পারে।

কলা

কলা খাওয়া যে খুবই উপকারী, সেটা আপনারা সবাই জানেন। কিন্তু জানেন কি খালি পেটে কলা খেলে কি মারাত্মক সমস্যা হতে পারে? কলায় প্রচুর পরিমাণে ম্যাগনেসিয়াম ও অন্যান্য নানা মিনারেল থাকে। ফলে আপনি যদি খালি পেটে কলা খান, তা আপনার রক্তে মিনারেলসের মাত্রা বাড়িয়ে দেয় ও তার ফলে আপনার হার্টের নানা সমস্যা হতে পারে।

শসা ও অন্যান্য সবুজ সবজি

কি? দেখে অবাক হচ্ছেন নাকি? এগুলো সবই খাওয়া শরীরের পক্ষে ভালো, কিন্তু ভরা পেটে। ঘুম থেকে উঠে খালি পেটে শসা খেয়ে নিলেন এটা কিন্তু মোটেই স্বাস্থ্যকর নয়। কারণ এইসবে প্রচুর পরিমাণ অ্যামাইনো অ্যাসিড থাকে যা খালি পেটে খেলে অম্বল, তলপেটে ব্যথা ইত্যাদির কারণ হয়। তাই খালি পেটে এসব খাওয়ার অভ্যেস থাকলে আজই ছাড়ুন।

টমেটো

স্যালাড বানিয়ে যত খুশি টমেটো খান। কিন্তু খালি পেটে টমেটো? নৈব নৈব চ। টমেটোতে প্রচুর পরিমাণে ট্যানিক অ্যাসিড থাকে, যার ফলে খালি পেটে টোম্যাটো খেলে অ্যাসিডিটি বা অম্বলের সম্ভাবনা বেড়ে যায়।

নাশপাতি

নাশপাতি খালি পেটে খেলে ওতে যে ফাইবার থাকে তা কিন্তু আপনার শরীরের মিউকাস মেমব্রেনের ক্ষতি করতে পারে। তাই খালি পেটে নাশপাতি খাবেন না।

কোল্ডড্রিঙ্কস

খুব গরম লাগছে, তাই ঘুম থেকে উঠেই বসে গেলেন এক গ্লাস কোল্ডড্রিঙ্কস নিয়ে—মোটেই ভালো নয়। কোল্ডড্রিঙ্কসে থাকা কার্বন-ডাই-অক্সাইড কিন্তু আপনার পেটের মিউকাস মেমব্রেনকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে এবং পাকস্থলীতে রক্ত সঞ্চালনও কমিয়ে দেয়। এর ফলে খাবার হজম হতে দেরী হয় ও হজমের নানা সমস্যা হয়।

মদ্-সোডা

মদ্যপান শরীরের জন্য ক্ষতিকর। আর খালি পেটে মদ্যপান আরো ক্ষতিকর। মদের মধ্যে যেসব উপাদান রয়েছে সেগুলো অন্ত্রের জ্বালাভাব তৈরি করে। সোডার মধ্যে রয়েছে উচ্চ পরিমাণ কাবোর্নেটেট এসিড। খালি পেটে সোডা খাওয়া হলে এই এসিড স্বাস্থ্যের সমস্যা তৈরি করে এবং বমিবমি ভাব তৈরি করে।

ঝাল জাতীয় খাবার

আমরা অনেকেই ঝাল জাতীয় খাবার খেতে ভালোবাসি, তবে খালি পেটে ঝাল জাতীয় খাবার খাওয়া ঠিক নয়। এর ফলে এসিডিক বিক্রিয়া হয়ে পেট জ্বালাভাব তৈরি হয়।

ওষুধ

কিছু কিছু গ্যাসট্রিকের ওষুধ খাওয়ার আগে খেতে বলা হয়। তবে অধিকাংশ ওষুধ ভরা পেটে খাওয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা। যখন খালি পেটে ওষুধ খাওয়া হয় এটা পাকস্থলিতে অস্বস্থিকর অবস্থার তৈরি করে। অ্যাসপিরিন প্যারাসিটামল বা অন্য যে কোনো anti-inflammatory drug খালি পেটে খাবেন না। এর ফলে ওষুধের কার্যক্ষমতা কমে যায়। এছাড়াও বিভিন্ন শারীরিক অসুবিধা যেমন গ্যাস্ট্রিক ব্লিডিং হতে পারে।

দই বা অন্যান্য নানা ফারমেন্টেড খাবার

দই খাবার পর যত খুশি খান, আপত্তি নেই। কিন্তু খালি পেটে দই বা ওই জাতীয় নানা ফারমেন্টেড খাবার খেলে তা পেটে গিয়ে হাইড্রোক্লোরিক অ্যাসিড তৈরি করে। যা দইতে থাকা ল্যাক্টিক অ্যাসিড ব্যাকটেরিয়াকে মেরে ফেলে ও আপনার শরীরের ওভার অল যে স্বাভাবিক ব্যাকটেরিয়াল সিস্টেম, তাকে ক্ষতিগ্রস্ত করে।

সাইট্রাস জুস

কমলা লেবু, পাতি লেবু ইত্যাদি ফলের রস খালি পেটে খাবেন না। এতে উপস্থিত অ্যাসিড আর ফাইবার শরীরের ক্ষতি করবে। যদি খাবার না থাকে তাহলে দুভাগ রসের সঙ্গে এক ভাগ পানি মিশিয়ে নিন। এছাড়া মনে রাখবেন, খিদে পেটে ঘুমাতে যাবেন না। কারণ খিদে আর শরীরে গ্লুকোজ কমে যাওয়ার ফলে ঘুম আসা মুশকিল হবে। ঘুম যদিও বা আসে তা ছাড়া ছাড়া হবে এবং সহজেই ঘুম ভেঙে যাবে। তবে শুতে যাওয়ার ঠিক আগে পেট ভর্তি খাবার খাওয়াও মোটেই ভালো আইডিয়া নয়। ভালো হয় শুতে যাওয়ার আগে গরম দুধ আর মধু খান। অন্য ডেইরি প্রডাক্টও খেতে পারেন।

কমেন্টস

কমেন্টস