ট্রাম্প-কিম বৈঠক নিয়ে পুতিনের মূল্যায়ন

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

আগামী ১২ জুন অনুষ্ঠেয় উত্তর কোরীয় নেতা কিম জং উন ও মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মধ্যে ঐতিহাসিক সাক্ষাতের দিকে তাকিয়ে আছে পুরো বিশ্ব। এবার এই দুই নেতার বৈঠক নিয়ে মুখ খুলেছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

চীন সফরের প্রাক্কালে চায়না মিডিয়া গ্রুপকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বৈঠক প্রসঙ্গে ট্রাম্পের সিধান্তকে স্বাগত জানান। এ সময় প্রেসিডেন্ট  পুতিন বলেন, ‘আমি আশা করছি যে বৈঠকে উত্তর কোরীয় নেতা কিম জং উন ও মার্কিন প্রেসিডেন্ট বৈঠকটি আয়োজনের যে সাহসী ও পরিপক্ক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, তা থেকে একটি ইতিবাচক ফলাফল আসবে। আমরা সবাই সেই অপেক্ষাতেই রইলাম।’

পুতিন আরও বলেন, ‘আমরা দেখতেই পাচ্ছি যে উত্তেজনা হ্রাসে উত্তর কোরীয় নেতৃত্ব অভূতপূর্ণ পদক্ষেপ নিয়েছে। সত্যি কথা বলতে কি, এটা আমাকে বিস্মিত করেছে।’

পুতিন জানান, যুক্তরাষ্ট্র এবং উত্তর কোরিয়ার মধ্যে অস্ত্র প্রতিযোগিতা বন্ধের বিষয়ে তিনি পুরোপুরি একমত। বর্তমান পরিস্থিতিতে উত্তর কোরিয়ার নিরাপত্তার নিশ্চয়তা প্রয়োজন। তাছাড়া, ১২ জুনের ওই বৈঠকটি ইতিবাচক ফল বয়ে আনবে বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি।

প্রসঙ্গত, ১২জুন সিঙ্গাপুরে ট্রাম্প-কিম বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার পর ট্রাম্পের সঙ্গে পুতিনের সম্ভাব্য বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। এই ইস্যুতে পশ্চিমের সঙ্গে রাশিয়ার সম্পর্ক নিয়ে পুতিন বলেন, যদি কোন অবরোধ বা নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয় তবে অবাক হব না। আমরা জানি আমাদের পশ্চিমা সহযোগিরা নিষেধাজ্ঞা বা অবরোধ আরোপ করে আমাদের উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করতে চায়। কিন্তু এই ধরনের পদক্ষেপ আমাদের উন্নয়ন বা সার্বভৌমত্বের জন্য কোন বাধা নয়। সেই সঙ্গে পুতিন আরো বলেন, রাশিয়া পশ্চিমের সঙ্গে ইতিবাচক সম্পর্ক এগিয়ে নিতে চায়। রয়টার্স, সিএনবিসি।

কমেন্টস

কমেন্টস