মধ্যপ্রাচ্যে আসতে দেওয়া হবে না আমেরিকাকেঃ খামেনেয়ী

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ 

ইরানের বিরুদ্ধে সরাসরি সংঘর্ষে লিপ্ত হতে সৌদি আরবসহ কিছু আঞ্চলিক দেশকে আমেরিকা উসকানি দিচ্ছে বলে জানিয়েছেন ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী। মার্কিনীরা সৌদি আরব এবং বিশেষ কয়েকটি আঞ্চলিক দেশকে নানাভাবে উসকানি দিচ্ছে। তাদের ইরানের বিরুদ্ধে লেলিয়ে দেওয়ার জন্য চেষ্টা চালাচ্ছে। যদি তারা বুদ্ধিসম্পন্ন হয় তাহলে তারা মার্কিনীদের এ ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে প্রতারিত হবে না।

১ মে ‘আন্তর্জাতিক শ্রমিক দিবস’ উপলক্ষে সোমবার তেহরানে শ্রমিক এবং উদ্যোক্তাদের এক সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।

মার্কিন নতুন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও সৌদি আরব সফরে গিয়ে পারস্য উপসাগরীয় দেশগুলোকে ঐক্যবদ্ধভাবে ইরানকে মোকাবেলার আহ্বান জানানোর একদিন পর আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ীর এসব কথা বললেন।

সর্বোচ্চ নেতা বলেন, ইরান এবং এ দেশের শক্তিশালী জনগণের বিরুদ্ধে সরাসরি সংঘর্ষে লিপ্ত হলে যে মূল্য দিতে হবে তা মোকাবেলা করতে চায় না আমেরিকা। বরং এসবের দায়ভার এ অঞ্চলের দেশগুলোর ওপর চাপিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছে মার্কিনীরা।

হামলা চালালেই শত্রুরা পরাজিত হবে দাবি করে আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী বলেন, এ অঞ্চলের কিছু দেশকে মনে রাখতে হবে যে, তারা যদি ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধে লিপ্ত হয় তাহলে তাদের ওপর পাল্টা আঘাত হানা হবে। তারা নিশ্চিতভাবে পরাজিত হবে।

আমেরিকাকে মধ্যপ্রাচ্যে আসতে দেওয়া হবে না জানিয়ে আয়াতুল্লাহ খামেনেয়ী বলেন, মধ্যপ্রাচ্যে নিরাপত্তাহীনতা, যুদ্ধ এবং সন্ত্রাসবাদ ছড়িয়ে দেওয়ার এজেন্ডা নিয়েই এ অঞ্চলে সামরিক উপস্থিতি বাড়িয়েছে আমেরিকা। এ কারণে এ অঞ্চলে মার্কিনীদের চলাচল অবশ্যই বন্ধ করে দিতে হবে। তাদের পশ্চিম এশিয়া ছেড়ে চলে যেতে হবে।

কমেন্টস

কমেন্টস