প্রথম যৌন হয়রানির শিকার জাতিসংঘের কোন নারী কর্মী

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ 

উর্ধ্বতন সহকর্মীর বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ এনেছেন জাতিসংঘের এক নারী কর্মী। জাতিসংঘের কোনো কর্মকর্তার বিরুদ্ধে এটাই জনসম্মুখে আসা কোনো প্রথম অভিযোগ।

শুক্রবার (৩০ মার্চ) আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের খবরে এমনটাই জানা গেছে। খবরে বলা হয়, ওই কর্মকর্তা নারী সহকর্মীকে শারীরিক সম্পর্কের ফলে পদোন্নতির প্রস্তাব দেন। কিন্তু তিনি তা প্রত্যাখ্যান করে বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ করেন। তবে কর্তপক্ষ তার বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা না নেওয়ায় মুখ খুলেছেন ওই নারী।

সিএনএনকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে জাতিসংঘের কর্মকর্তা মার্টিনা ব্রোস্ট্রম অভিযোগ করেন, জাতিসংঘের সহকারী সচিব ড. লুইজ লুয়েরেস তাকে ২০১৫ সালে একটি সম্মেলনে হোটেলের লিফটে জোর করে চুমু খান এবং হোটেল কক্ষে নিয়ে মাদক নেওয়ার কথা বলেন।

তবে এ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন অভিযুক্ত ড. লুইজ। তিনি জাতিসংঘের বিশ্ব এইডস প্রোগ্রামের  ডেপুটি এক্সিকউটিভ ডিরেক্টর হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।

আর অভিযোগকারী মার্টিনা ওই প্রকল্পে নীতি পরামর্শক হিসেবে তখন দায়িত্ব পালন করতেন।

তিনি বলেন, ‘আমি তাকে আবেগপ্রবণ হয়ে বলেছি এবং সেখানে দাতকামড়ে দাঁড়িয়ে ছিলাম কারণ আমি তখন লিফট ছেড়ে আসতে পারছিলাম না।’

তবে ড. লুইজ বলেন, আমি তাকে ১৪ মাস ধরে বিভিন্ন কাজে সহযোগিতা করেছি। কিন্তু মার্টিনার ওই অভিযোগ প্রামাণিক বিষয় নয়।

লুইজের বিরুদ্ধে আরও এ ধরনের অভিযোগ রয়েছে বলে খবরে বলা হয়েছে।

কমেন্টস

কমেন্টস