জাবির আওয়ামীপন্থী দু’পক্ষের শিক্ষকদের অশ্লীল তাণ্ডব (ভিডিও)  

ডেইলি মিরর ২৪ ডেস্কঃ 

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) আওয়ামীপন্থী শিক্ষকদের দু’পক্ষের মধ্যে ধস্তাধস্তির ঘটনার পর সকালে মুখোমুখি হয়ে অশ্লীল কথা কাটাকাটিতে জড়ান।  

মঙ্গলবার ভোর পৌনে ৫টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশমাইল এলাকায় পরিবহন ডিপোর সামনে এ ঘটনা ঘটে। উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম এবং সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক শরীফ এনামুল কবিরের অনুসারী শিক্ষকদের মধ্যে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, উপাচার্য ফারজানা ইসলামের বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয় অ্যাক্ট-১৯৭৩, স্ট্যাটিউট ও সিন্ডিকেট পরিচালনা বিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে ডাকা ধর্মঘটের অংশ হিসেবে ভোর ৪টার দিকে শরীফ এনামুল কবিরের অনুসারী কয়েকজন শিক্ষক পরিবহন ডিপোর সামনে অবস্থান নেন। এসময় তারা পরিবহন ডিপোর ফটকে তালা ঝুলিয়ে দেন। সাড়ে ৪টার দিকে ফারজানা ইসলামের অনুসারী শিক্ষকরা সেখানে উপস্থিত হয়ে তালা খুলে দেওয়ার অনুরোধ জানালে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। একপর্যায়ে হাতহাতি হয় দু’পক্ষের শিক্ষকদের মধ্যে।

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত, শরীফ এনামুল কবিরপন্থী ২০-২৫ জন শিক্ষক বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরাতন প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান নিয়ে ধর্মঘট পালন করছেন। এদিকে, দুপুর ১২ টায় পুরাতন রেজিস্ট্রারের সামনে তারা সংবাদ সম্মেলন করবেন বলে জানিয়েছেন।

শিক্ষক সমিতির সাবেক সভাপতি পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ফরিদ আহমদ বলেন, আমরা শান্তিপূর্ণভাবে ধর্মঘট পালন করতে গেলে উপাচার্যপন্থী ২০-২৫ জন শিক্ষক আমাদের ৬ জন শিক্ষকের ওপর হামলা চালায়।

বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর হলের নবনিযুক্ত প্রভোস্ট অধ্যাপক আব্দুল্লাহ হেল কাফী বলেন, আমরা পরিবহন ডিপোতে উপস্থিত হয়ে তাদের তালা খুলে দিতে বললে আমাদের দু’জন শিক্ষকের ওপর তারা হামলা চালায়। পরে আমরা উভয়পক্ষকে শান্ত করার চেষ্টা করি।

উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, মঙ্গলবার ভোরের ঘটনা তদন্তের দাবি রাখে। সবাই যেন শান্তিপূর্ণ অবস্থানে থাকে সেই আহ্বান জানাবো।

প্রসঙ্গত, গত ১৫ ফেব্রুয়ারি উপাচার্য হিসেবে ফারজানা ইসলাম পুনঃনিয়োগ পাওয়ার পর থেকেই বিশ্ববিদ্যালয়ের আওয়ামীপন্থী শিক্ষকদের মধ্যে বিভাজন স্পষ্ট হতে থাকে। সাবেক উপাচার্য শরীফ এনামুল কবির ও বর্তমান উপাচার্য ফারজানা ইসলাম এই দুই মেরুতে বিভক্ত হয়ে পড়েন তারা।

কমেন্টস

কমেন্টস