‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা বাতিল চেয়ে রিট

ডেইলি মিরর ২৪ ডেস্কঃ 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের অধীন ২০১৮-১৯ সেশনের ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা বাতিল ও ভর্তি স্থগিত চেয়ে রিট করা হয়েছে।

রবিবার (২১ অক্টোবর) হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় রিটটি করা হয়।

রিটটি করেছেন ‘ঘ’ ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে অকৃতকার্য হওয়া এক ভর্তিচ্ছুর বাবা সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী ইউনুস আলী আকন্দ।

এ বিষয়ে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, এর আগে ভর্তি পরীক্ষা বাতিল চেয়ে নোটিশ পাঠিয়েছিলাম। কিন্তু নোটিশের জবাব পাইনি। তাই রিট করেছি।

রিটের আর্জিতে বলা হয়েছে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০১৮-১৯ সেশনের ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, সেই মর্মে রুল জারির আর্জি জানানো হয়েছে। এই রুল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত ভর্তি প্রক্রিয়া স্থগিত রাখার নির্দেশনা দিতে আবেদন করা হয়েছে। রিট আবেদনে বিবাদী করা হয়েছে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, শিক্ষা সচিব ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান অনুষদের ডিনকে।

এর আগে গত ১৮ অক্টোবর ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ভর্তি পরীক্ষা বাতিল চেয়ে নোটিশ পাঠিয়েছিলেন ওই আইনজীবী।

আইনি ওই নোটিশে তিনি বলেছেন, তার মেয়ে আনিকা বিনতে ইউনুস ‘ঘ’ ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষা দেয়। সে খুব মেধাবী ছাত্রী কিন্তু তাকে পরীক্ষায় ফেল দেখানো হয়েছে। সে ভিকারুন্নিসা নুন স্কুল অ্যান্ড কলেজের মেধাবী ছাত্রী। সে ফেল করার মতো ছাত্রী নয়।

উল্লেখ্য, গত ১২ অক্টোবর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরীক্ষা চলাকালীন প্রশ্নফাঁসের অভিযোগ উঠলেও কর্তৃপক্ষ আমলে নেয়নি। পরে প্রশ্নফাঁসের সঙ্গে জড়িত ছয়জনকে আটক করলে শাহবাগ থানায় মামলা হয়।

এ ঘটনায় উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক মুহাম্মদ সামাদকে প্রধান করে তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়।

এরপর প্রথমে ফল প্রকাশ স্থগিত রাখলেও পরে ১৬ অক্টোবর ফল প্রকাশ করা হয়।

ফল প্রকাশের পরপরই বেরিয়ে এসেছে বিস্ময়কর তথ্য। এ ইউনিটের ফল বিশ্লেষণ করে দেখা যায় প্রথম ১০০ জনের মধ্যে অন্তত ৭০ জনের ফল প্রশ্নসাপেক্ষ। যারা অনুষ্ঠিত নিজ নিজ ইউনিটে পাস নম্বরও তুলতে পারেননি।

পরবর্তীতে, এ পরীক্ষা বাতিলের দাবিতে অনশন করছেন শিক্ষার্থীরা। এ নিয়ে কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারি দিয়েছে কয়েকটি সংগঠন।

এ ইউনিটের ফল প্রকাশের পর শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা বলছেন, এমন অসঙ্গতিপূর্ণ ফল বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসে দেখা যায়নি।

কমেন্টস

কমেন্টস