ধনীদের সম্পদের হিসাবে টেক্কা দিতে পারে যে কুকুর! (ভিডিও)

ডেইলি মিরর ২৪ ডেস্কঃ

৮ কোটি ডলারের মালিক গুন্থার নামে একটি জার্মান শেফার্ড! কি অবাক লাগছে তো শুনতে ! অবাক হলেও কথা  কিন্তু সত্যি। 

জার্মানির এক কাউন্টেস কারলোটা লেবিয়েনস্টেইন মারা যাওয়ার পরে তার সম্পত্তির মালিকানা পায় গুন্থার। সে ছিল তার পরিবারের তৃতীয় প্রজন্ম। পরবর্তী সময়ে তার মৃত্যুর পরে উত্তরাধিকার সূত্রে সমস্ত সম্পত্তিই চলে যায় চতুর্থ গুন্থারের কাছে। তত দিনে সম্পত্তির পরিমাণও বেড়ে গিয়েছিল অনেকটাই।

শুধু অর্থই নয়, বিশ্বের বিভিন্ন জায়গায় রয়েছে তার নিজস্ব এস্টেট। যেমন বাহামা, জার্মানি ও ইতালি ও মায়ামি। ‘শেফার্ড.কম’ নামে এক ওয়েবসাইট থেকে জানা গেছে যে, মায়ামির এস্টেটটি এক সময়ে ছিল বিখ্যাত পপ তারকা ম্যাডোনার, যার দাম ছিল প্রায় ৭৫ লাখ ডলার।

এক বাড়ি থেকে অন্য বাড়ি যাওয়ার জন্য গুন্থারের রয়েছে নিজস্ব লিমোজিন গাড়ি। তার দেখাশোনার জন্য চব্বিশ ঘণ্টাই লোকজন থাকে গুন্থারের সঙ্গে। তার নিজস্ব একজন কুকও রয়েছে যে গুন্থারের জন্য স্টেক ও কেভিয়ার তৈরি করে দেয়। বর্তমানে গুন্থারের সম্পত্তির পরিমাণ ৪০০ মিলিয়ান ডলার।

কিন্তু স্বয়ং গুন্থারকে ঘিরেই দানা বেঁধেছে রহস্য। ২০১৭ সালের জুন মাসে ‘সেলিব্রিটিপেটস.নেট’ নামে এক ওয়েবসাইটের এক প্রতিবেদনে প্রশ্ন তোলা হয়, গুন্থার চতুর্থই কি আসল গুন্থার, নাকি অন্য কেউ!

জানা যায়, চতুর্থ গুন্থারের জন্ম হয় ১৯৯১ সাল নাগাদ। সে ক্ষেত্রে বর্তমানে তার বয়স ২৭ বছর। কিন্তু, একটি জার্মান শেফার্ডের আয়ুকাল গড় ১৩ বছর। তা হলে কে এই গুন্থার। ইতালির ‘কাস্টাডিভা রিসর্ট অ্যান্ড স্পা’র তরফ থেকে প্রকাশিত একটি ভিডিওতে দেখুন চতুর্থ গুন্থারের কীর্তি-

কমেন্টস

কমেন্টস