প্রেম করে অন্তঃসত্ত্বা; বিয়ের দাবিতে অনশন

ডেইলি মিরর ২৪ ডেস্কঃ

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার শালিয়া পূর্ব পাড়ায় বিয়ের দাবিতে একই গ্রামের অন্তঃসত্ত্বা কলেজছাত্রী প্রেমিকের বাড়িতে অনশন শুরু করেছে। এ ঘটনায় প্রেমিক জানতে পেয়ে বাড়ি ছেড়ে পালিয়েছে বলে জানা গেছে। ঘটনাটি জানাজানি হওয়ায় অন্তঃসত্ত্বা কলেজছাত্রীকে দেখতে উৎসুক জনতা ভীড় জমাচ্ছে। 

জানা গেছে, ঝিনাইদহ সদর উপজেলার হলিধানী ইউনিয়নের শালিয়া পূর্ব পাড়ার মালোশিয়া প্রবাসী মিজানুর রহমানের ছেলে কোটচাঁদপুর খন্দকার মোশারফ হোসেন ডিগ্রি কলেজের বাংলা অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র মেহেদি হাসানের (২০) সাথে একই গ্রামের রাজমিস্ত্রি কুদ্দুস আলীর মেয়ে ঝিনাইদহ সরকারি কেসি কলেজ ডিগ্রি প্রথম বর্ষের ছাত্রী (১৯) প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে।

দুই বছর ধরে কলেজে পড়াশুনাকালে দু’জনের মধ্যে মন দেওয়া-নেওয়ার একপর্যায়ে কলেজছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। এরই মধ্যে প্রেমিক মেহেদি হাসান জানতে পেয়ে কলেজছাত্রীকে এড়িয়ে চলতে শুরু করে এবং সম্পর্ক অস্বীকার করতে থাকে।  পারিবারিকভাবে বিষয়টি মেনে নেওয়ার জন্য কলেজছাত্রের পরিবারকে অনুরোধ করেন ভুক্তভোগী ছাত্রীর পরিবার। কিন্তু তাতেও সাড়ে মেলেনি। উপায়ন্তর না পেয়ে আজ বুধবার সকাল থেকে অনশন শুরু করেছে অন্তঃসত্ত্বা কলেজছাত্রী। ঘটনাটি নিয়ে এলাকায় ব্যাপক হৈ চৈ শুরু হয়েছে।

এ নিয়ে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার হলিধানী ইউনিয়নের মেম্বার কবির হোসেন জানান, সালিসি মীমাংসার মাধ্যমে ঘটনাটি সমাধান করা হবে। ইতিমধ্যে উভয় পরিবারকে বসার জন্য বলা হয়েছে।

এ ব্যাপারে ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি শেখ ইমদাদুল হক জানান, বিষয়টি আমি শুনেছি। যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

কমেন্টস

কমেন্টস