যে সূরা পাঠে জীবনে কখনও অভাব আসবে না

ডেইলি মিরর ২৪ ডেস্কঃ

জীবনে অভাব-অনটন কারোরেই কাম্য নয়। অভাবের কারণে জীবনে নেমে আসে ক্লিষ্টতা ও দুঃখ-যাতনা। তাছাড়া অভাবের কারণেই মানুষ জড়িয়ে পড়ে বিভিন্ন অপরাধে। তাই দারিদ্র্য ও অভাব দূরকরণে ইসলামের প্রচুর নির্দেশনা রয়েছে। এক্ষেত্রে বিভিন্ন আমলের মধ্যে রয়েছে, সুরা ওয়াক্বিয়াহ তেলাওয়াত করা।

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ইশরাদ করেছেন””এ সূরা প্রাচুর্যের (রিযিক বৃদ্ধির) সূরা। যে ব্যক্তি প্রত্যহ রাতে এ সূরা পাঠ করবে তার জীবনে কখন ও অভাব হবেনা””।

অন্য হাদিসে আছে, নিয়মিত সুরা আর রাহমান, সুরা হাদিদ ও সুরা ওয়াক্বিয়ার তেলাওয়াতকারীকে কেয়ামতের দিন জান্নাতুল ফেরদাউসের অধিবাসী হিসেবে ঘোষণা করা হবে।

অন্য এক হাদিসে আছে, সুরা ওয়াক্বিয়াহ হলো বিত্ত-বৈভবের সুরা। সুতরাং তোমরা নিজেরা তা পড় এবং তোমাদের সন্তানদেরও এ সুরার শিক্ষা দাও। অন্য এক বর্ণনায় আছে, তোমাদের নারীদের এ সুরা শিক্ষা দাও। হজরত আয়েশা (রা.)-কে এ সুরা তেলাওয়াত করার জন্য আদেশ করা হয়েছিল।

বর্ণিত আছে, মৃত্যুর সময় আবদুল্লাহ ইবনে মাসউদ (রা.)-কে যখন তার সন্তানদের জন্য একটি দিনারও রেখে না যাওয়ার কারণে তিরষ্কার করা হলো, তখন তিনি উত্তরে বলেছিলেন, তাদের জন্য আমি সুরা ওয়াক্বিয়া রেখে গেলাম। (ফয়জুল কাদির-৪/৪১)

কমেন্টস

কমেন্টস