দাফনের ২ মাস পর এসএসসি পরীক্ষার্থীর লাশ উত্তোলন

ডেইলি মিরর ২৪ ডেস্কঃ 

দাফনের প্রায় ২ মাস পর লাশ ময়না তদন্তের জন্য আক্কাস আলী নামে এক এসএসসি পরীক্ষার্থীর লাশ কবর থেকে উত্তোলন করা হয়েছে।

শুক্রবার দুপুরে দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলার শালখুরিয়া গ্রামের পারিবারিক কবরস্থান থেকে তার লাশটি উত্তোলন করা হয়।
আক্কাস আলী(১৭) নবাবগঞ্জ উপজেলার শালখুরিয়া গ্রামের আলতাব হোসেনের ছেলে এবং শালখুরিয়া হাই স্কুলের গতবারের এসএসসি পরীক্ষাথী ছিল।

নবাবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মশিউর রহমানের উপস্থিতিতে লাশটি উত্তোলন করা হয়। এসময় নবাবগঞ্জ থানার ওসি সুব্রত কুমার সরকার সেখানে উপস্থিত ছিলেন। লাশ উত্তোলনের দৃশ্য দেখতে এলাকার শতশত উৎসুক জনতার ভিড় জমে।

পুলিশ জানায়, এসএসসি পরীক্ষার্থী আক্কাস আলী গত ১৯ মার্চ রাত ৮টার দিকে বাড়ি থেকে পাশ্ববর্তী তিখুর বাজারে ইসলামী সভা শুনতে যায়। এরপর তার কোন সন্ধান পাওয়া যাচ্ছিল না। এর ২দিন পর ২১ মার্চ সকালে শালখুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পিছন থেকে পানি প্রবাহের একটি নালা থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। পানিতে পড়ে মারা গেছে হিসাবে তাকে ওই দিনই বিকালে তার পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। এরপর বাবা আলতাব হোসেনের সন্দেহ হয় যে, তার ছেলেকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে স্কুলের পিছেনে ফেলে রোখা হয়েছিল।

পরে এমন অভিযোগ আনয়ন করে ৫ জনকে অভিযুক্ত করে দিনাজপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালত-০৬ এ একটি মামলা দায়ের করে। আদালত মামলাটি গত ৩ মে নবাবগঞ্জ থানার ওসিকে এফ আই আর হিসাবে গণ্য করার নির্দেশ দেন। আদালতের ওই নির্দেশে নবাবগঞ্জ থানায় মামলা নং-১২ তারিখ ৯/৫/২০১৮ দায়ের হয়। মামলার ভিকটিমের লাশ ময়না তদন্তের জন্য শুক্রবার কবর থেকে উত্তোলন করে মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। তবে এঘটনায় এখনও কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ জানায়।

কমেন্টস

কমেন্টস