ছেলেকে খুন করতে লক্ষ টাকা সুপারি দিলেন মা!

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

গত ৭ এপ্রিল রাতি তলাই নামে এক জনবিরল এলাকায় উদ্ধার হয় মোহিত নামে ২১ বছর বয়সী এক যুবকের দেহ। জিজ্ঞাসাবাদের পর একে একে গ্রেফতার করা হয় আরও ৪ জনকে।

জানা যায়, ছেলেকে খুন করার জন্য ১ লক্ষ টাকা সুপারি দিলেন মা। ঘটনায় মা ও তাঁর জামাই-সহ ৬ জনকে গ্রেফতার করেছে রাজস্থানের প্রতাপগড় জেলার পুলিস। তদন্তকারীরা জানিয়েছিলেন, ছেলেকে খুন করার জন্য স্থানীয় এক ধাবা মালিককে ১ লক্ষ টাকা সুপারি দিয়েছিলেন ওই মহিলা।

তদন্তে উঠে আসে, মাদক নির্ভর ছিলেন মোহিত। বাবার মৃত্যুর পর থেকে প্রায়ই মা-কে মারধর করত সে। ছেলের নির্যাতনে অতিষ্ঠ হয়ে মেয়ের সঙ্গে থাকতে শুরু করেন প্রেমলতা দেবী। একই সঙ্গে পরিবারের ৪ বিঘা জমি বিক্রি করতে স্থানীয় এক ব্যক্তির সঙ্গে যোগাযোগ করেন তিনি। যদিও জমি বিক্রিতে বাধা দেয় মোহিত। এর পরই মোহিতকে খুনের চক্রান্ত করেন প্রেমলতা ও তাঁর জামাই।

যে ব্যক্তি জমি কিনতে চেয়েছিলেন তাঁকেই দেওয়া হয় খুনের বরাত। এজন্য খুনের আগে তাঁকে অগ্রিম ৫০,০০০ টাকা দেওয়া হয়। এর পরই অচেতন করে শ্বাসরোধ করে মোহিতকে খুন করে ওই সুপারি কিলার। তবে সিসিটিভি ফুটেজে খুনের আগে অভিযুক্তকে মোহিতের সঙ্গে দেখতে পেয়েই জাল গোটানো শুরু করে পুলিস। তাতেই উঠে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য। জানা যায়, মোহিতকে খুনের সুপারি দিয়েছিলেন স্বয়ং তাঁর মা।

কমেন্টস

কমেন্টস